‘আইপিএলে ক্রিকেটাররা কেন খেলবে না?

0
6

আইপিএলে কেন খেলবে না ক্রিকেটাররা? প্রশ্নটা সুনীল গাভাস্কারের। প্রসঙ্গটা উঠেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ওই প্রস্তাবেই। নতুন কেন্দ্রীয় চুক্তিতে আইপিএলে না খেলার বিনিময়ে ক্রিকেটারদের অতিরিক্ত অর্থ দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছে তারা। ব্যাপারটা কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটাররা। এ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে চলছে দ্বন্দ্ব। দ্বন্দ্বের অবসান না ঘটলে ভবিষ্যতে জাতীয় দল বয়কটেরও হুমকি দিয়ে রেখেছেন ক্রিকেটাররা।
ভারতীয় ক্রিকেট কিংবদন্তি সুনীল গাভাস্কারের যুক্তি হলো, ‘আইপিএলে খেলে একজন ক্রিকেটার যে পরিমাণ অর্থ আয় করে, নিজ দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে সে পরিমাণ অর্থ আয় করতে তাদের দুই–তিন মৌসুম লেগে যায়। ব্যাপারটা যদি এমন হয়, তাহলে ক্রিকেটাররা কেন আইপিএল বাদ দেবে?’
ক্রিকেট দুনিয়ার সবচেয়ে ‘ধনী’ খেলোয়াড় মনে করা হয় অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটারদের। প্রশ্ন উঠেছে, এই ‘ধনী’ ক্রিকেটাররাই যদি নিজ দেশের ক্রিকেট বোর্ডের আর্থিক চুক্তিতে সন্তুষ্ট না হন, তাহলে অন্য টেস্ট খেলুড়ে দেশগুলোর ক্রিকেটারদের আর্থিক প্রাপ্তিটা কেমন হতে পারে! গাভাস্কার অবশ্য এই ব্যাপারকে দেখতে চান স্বাভাবিক ভাবনা দিয়েই, ‘কেউ যদি মনে করে সে যোগ্য, তাহলে সে কেন অতিরিক্ত অর্থ দাবি করবে না?’ তবে গাভাস্কারের মতে, ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে খেলোয়াড়দের এই দ্বন্দ্ব খুব ভালোভাবেই সমাধানযোগ্য, ‘ক্রিকেটাররা যদি মনে করে তাদের বোর্ড অতিরিক্ত অর্থ আয় করছে, তাহলে তারা সেই অতিরিক্ত অর্থের একটা অংশ দাবি করতেই পারে। পুরো ব্যাপারটাই সমাধানযোগ্য। কেবল একসঙ্গে বসে আলোচনা করেই ব্যাপারটার সমাধান করতে হবে।’
শুধু অস্ট্রেলিয়াই নয়, বোর্ডের সঙ্গে আর্থিক চুক্তি নিয়ে সম্প্রতি অসন্তোষ দেখা দিয়েছিল ভারত ও বাংলাদেশেও। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে তো অনেক দিন ধরেই ক্রিকেটারদের সমস্যা। গাভাস্কার মনে করেন, এমন একটা পরিস্থিতিতে বোর্ডের বুঝতে হবে, খেলোয়াড়েরা তাদের সবচেয়ে বড় চালিকা শক্তি। খেলোয়াড়দের তোয়াজ করা ঠিক নয়, তবে খেলোয়াড়দের প্রতি ন্যায়বিচারটা কিন্তু করতে হবে।
গাভাস্কার ভারতীয় ক্রিকেটের আর্থিক অসামঞ্জস্য দ্রুত দূর করার আহ্বান জানিয়েছেন, ‘সবাইকে মনে রাখতে হবে, ভারতের সব ক্রিকেটার কিন্তু আইপিএলে খেলার সুযোগ পায় না। তাদের দিন কাটে রঞ্জি ট্রফি ও অন্যান্য টুর্নামেন্ট খেলে। একজন প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটার ৮০ দিনের রঞ্জি মৌসুমের জন্য হয়তো ৩০ থেকে ৪০ লাখ রুপি পেতে পারে। কিন্তু আইপিএলে একেবারে “অচেনা” কোনো ক্রিকেটার ভারতের যেকোনো অংশ থেকে উঠে এসে ৪৫ দিনেই তিন থেকে চার কোটি রুপি আয় করতে পারে। এটা কেন হবে? এটা অন্যায়। এটা ওই ৮০ দিন কষ্ট করা, আইপিএলে সুযোগ না পাওয়া ক্রিকেটারদের জন্য এক অর্থে অবিচার। এটা মেনে নেওয়া যায় না।’
ভারতীয় ক্রিকেটারদের আইপিএলের বাইরেও অন্যান্য দেশের টি-টোয়েন্টি লিগে খেলার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না কেন—গাভাস্কার এই প্রশ্নের জবাবে বলেছেন, ‘একমাত্র ক্যারিবীয় লিগ ছাড়া অন্যান্য দেশের টি-টোয়েন্টি লিগের সময় ভারতীয় ঘরোয়া মৌসুমের সঙ্গে মিলে যাওয়ায় তারা ওসব লিগে খেলতে পারছে না।’
টি-টোয়েন্টি লিগে খেলতে না পারলেও আইপিএলে সুযোগ না পাওয়া ভারতীয় বেশ কয়েকজন প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটার কিন্তু বাংলাদেশের ক্লাব ক্রিকেটে নিয়মিতই খেলছেন। এবারের ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে এ বছরই ভারতীয় দলের হয়ে টি-টোয়েন্টি খেলা পারভেজ রাসুল খেলছেন। খেলছেন ভারতের অনূর্ধ্ব-১৯ দলের সাবেক অধিনায়ক উন্মুক্ত চাঁদ, আইপিএলে খেলা মানবিন্দর বিসলা। আইপিএলে খেলা আরেক ক্রিকেটার মনোজ তিওয়ারিও খেলে গেছেন ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে। সূত্র: এনডিটিভি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here