আপনার নামের শুরু কি “S” দিয়ে? তাহলে জেনে নিন আপনার সম্পর্কে

0
46

সংখ্যাতত্ত্ব বা নিউমেরোলজি সংখ্যার সীমার বাইরেও বহু কিছুকে বিশ্লেষণ করে। এক্ষেত্রে তার যুক্তি— বিশ্ব সংসারের যে কোনও বস্তু বা ধারণাকেই সংখ্যা দ্বারা বিশ্লেষণ করা সম্ভব। এইভাবে এক জটিল যুক্তিজালের অবতারণা করে এই শাস্ত্র, যাকে ইউনিভার্সাল সায়েন্টিফিক রিজনিং দিয়ে কোনও দিনই ব্যাখ্যা করা যাবে না।

সংখ্যাতত্ত্বের বিচারে মানুষের নাম খুবই গুরুত্বপূর্ণ ইঙ্গিত তাকে বোঝার জন্য। কিন্তু কী করে সেই ‘বোঝা’-টি সম্ভব? নাম বা পদবীর আদ্যক্ষর থেকে বেশ কিছু সিদ্ধান্তে আসতে পারে এই প্রাচীন শাস্ত্র। এর আগে ‘ম’ অক্ষরটিকে নিয়ে একটি রচনা প্রকাশিত হয়েছে। এবারের বিষয় শ, স, ষ বা অন্যভাবে বললে ইংরেজি S।

সংখ্যাতত্ত্বের বিচারে ‘এস’ খুবই প্রভাবশালী বর্ণ। যাঁদের নাম অথবা পদবীর আদ্যক্ষর এই বর্ণটি, তাঁদের সম্পর্কে কী জানায় নিউমেরোলজি, জেনে নেওয়া যাক।

• সংখ্যাতত্ত্বের বিচারে ‘এস’ অক্ষরটি ১ সংখ্যাটির সমতুল্য।

• নাম বা পদবীর গোড়ায় এই অক্ষরটি থাকলে সেই ব্যক্তির আত্মবিশ্বাসী, কর্মদক্ষ এবং একগুঁয়ে হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল।

• এমন ব্যক্তির প্রাথমিক পরিচয়ই হল তাঁর স্পষ্টবাদন। মুখের উপরে অপ্রিয় সত্য বলতে এঁদের দেরি হয় না।

• এঁরা মূলত উচ্চাভিলাষী। এঁদের উচ্চাশা পূরণে অবশ্য এঁরা সৎ থাকেন।

• সম্পর্কের ক্ষেত্রেও এঁরা বিশ্বস্ত থাকেন। ব্যক্তিগত ও কর্মক্ষেত্রগত— উভয় সম্পর্কের ক্ষেত্রেই এই বিশ্বস্ততা বজায় থাকে।

• অতিমাত্রায় স্পষ্টবক্তা হওয়ার কারণে এঁদের পক্ষে খুব খোলাখুলি রোমান্স প্রকাশ করা সম্ভব হয় না। কিন্তু মনে মনে এঁরা রোম্যান্টিক। এঁদের প্রেম অনেক সময়েই অব্যক্ত থাকে।

• অন্যথায় এঁরা বেশ উষ্ণ স্বভাবের মানুষ। অন্যের সমস্যাকে নিজের কাঁধে নিতে পিছপা হন না।

• সত্যের প্রতি এঁদের নিষ্ঠা অবিচল। কিন্তু অনেক সময়েই এঁরা আবেগতাড়িত হয়ে কাজ করেন।

• এই ব্যক্তিদের একটা আশ্চর্য ক্ষমতা থাকে নিজেদের অনুভূতিকে লুকিয়ে্ রাখার। সে কারণে এঁরা অনেক সময়েই বিষণ্ন হয়ে পড়েন বা অবসাদে ভোগেন।

• অনুভূতি গোপন করলেও এঁদের কিন্তু উপযুক্ত বন্ধু বা সঙ্গিনী পেতে সমস্যা হয় না। কারণ, এঁদের আকর্যণী শক্তি প্রবল।

• যে কোনও কাজে হাত দেওয়ার আগে এঁরা বিস্তৃত চিন্তা-ভাবনা করেন। অনেক সময়ে এই কারণে এঁদের অনেক পরিকল্পিত কাজ করা হয়ে ওঠে না।

• এঁদের কেরিয়ার-ভাগ্য বেশ ভাল থাকে। ব্যবসায়ী, রাজনীতিক, অভিনেতা— যা-ই হন না কেন, এঁরা সাধারণত সাফল্য পান। অর্থিক দিক থেকেও এঁরা সফল থাকেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here