এইচএসসির খাতা দেখছেন শিক্ষার্থীরা, ১০০ খাতা উদ্ধার

0
36

সদ্য শেষ হওয়া উচ্চমাধ্যমিক (এইচএসসি) পরীক্ষার খাতা দেখানো হচ্ছে শিক্ষার্থীদের দিয়ে। আজ সোমবার এ তথ্য পেয়ে রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে মেয়েদের একটি হল থেকে এ রকম ১০০টি খাতা উদ্ধার করেছেন।
খাতাগুলো ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিষয়ের দ্বিতীয় পত্রের। এ বিষয়ের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে ২ মে। এর বিষয় কোড ছিল ২৬৮। পরীক্ষক কোড ৯৫০৪। পরে জানা গেছে, এই কোডধারী শিক্ষকের নাম মো. আবুল কালাম। তিনি রাজশাহী শহরের একটি সরকারি কলেজের শিক্ষক।
বিকেল চারটার দিকে শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক তরুণ কুমার সরকার ও উপপরীক্ষা নিয়ন্ত্রক জাহিদুর রহিম নগরের মতিহার থানার পুলিশ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের মন্নুজান হলের ফটকে অবস্থান নেন। কিন্তু পুলিশ প্রক্টর ও হলের প্রাধ্যক্ষ ছাড়া ভেতরে যেতে রাজি হয়নি। খবর দেওয়া হলে প্রায় এক ঘণ্টা পর প্রক্টর মুজিবুল হক আজাদ ও প্রাধ্যক্ষ জিন্নাত ফেরদৌসী হলে আসেন। তাঁরা ভেতরে গিয়ে হলের ১ নম্বর ডরমিটরির একটি খাটের নিচ থেকে একটি ব্যাগে ভরা অবস্থায় ১০০ খাতা উদ্ধার করেন। সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে তাঁরা হল থেকে বেরিয়ে আসেন। খাতাগুলো পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার দেখানো হয়।
পরে জানা গেছে, পরীক্ষক আবুল কালাম খাতাগুলো রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের একজন শিক্ষার্থীকে দেখার জন্য দিয়েছিলেন। ওই শিক্ষার্থী খাতাগুলো তাঁর এক ছাত্রী বন্ধুকে দেন। ওই বন্ধু মন্নুজান হলের ডরমিটরির একজন আবাসিক শিক্ষার্থী। সেখান থেকেই খাতাগুলো উদ্ধার করা হয়। কোন ছাত্রীর কাছ থেকে খাতাগুলো পাওয়া গেছে, তা তাঁরা জানাতে পারেননি।
সন্ধ্যায় শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক তরুণ কুমার সরকার প্রথম আলোকে বলেন, পরীক্ষক আবুল কালামকে তাঁর কার্যালয়ে হাজির করা হয়েছে। তাঁর বক্তব্য নেওয়া হচ্ছে। তাঁর বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে, সেটা পরে জানানো হবে। তবে আবুল কালাম পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের কাছে দাবি করেন, তিনি খাতাগুলো শাহ মখদুম কলেজের শিক্ষক মাসুদকে দেখতে দিয়েছিলেন। মাসুদই পরে খাতাগুলো অন্যত্র পাঠান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here