কুষ্টিয়ায় সংঘর্ষ, আহত ৪

0
2178

নজরুল ইসলাম মুকুল, কুষ্টিয়া: কুষ্টিয়া শহরের ১২নং ওয়ার্ড হরিশংকরপুর খাঁ পারায় খাঁ পরিবার কে উচ্ছেদের লক্ষ্যে ভয়াবহ হামলা করেছে এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীরা। মাদক বিক্রয়ের বিরোধিতা করায় এবং সন্ত্রাসীরা এলাকায় একক রাজত্ব কায়েম করতে এই পরিবারের উপর হামলা চালাই। এ হামলা এলাকার সন্ত্রাসীদের হিংস্রতা, বর্বরতা ও বিকৃত মানসিকতার বহিঃপ্রকাশ ঘটিয়েছে। জানা যায়, হাউজিং চাঁদাগাড়া মাঠের পূর্ব দিকে হরিশংকরপুর খাঁ পাড়াস্থ স’মিলের পশ্চিমে পরিত্যক্ত নিজ জমিতে কিছুদিন আগে একটি দোকানঘর তৈরি করে। সন্ত্রাসীরা দোকান ঘর ভাড়া নিতে চাইলে খাঁ পরিবার অস্বীকার করে। দোকানঘর ভাড়া না দেয়া এবং মাদক বিক্রয়ের বিরোধিতা করায় গত ১৬/০৪/২০১৭ রবিবার সকাল আনুমানিক ৯টায় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে শুভ, রাসেল, রনি, নিঝুম, শহর আলী, মুন্না রহমানসহ অজ্ঞাতনামা ৭/৮ জন খাঁ পরিবারের উপর সন্ত্রাসী হামলা চালায় বলে জানা গেছে। ঘটনার বিবরন ও মামলা সুত্রে আরও জানা যায়, প্রথমে সোমসের খাঁ’র ছোটো ছেলে সাগর খান (৩০) কে হত্যার উদ্দেশ্যে এলোপাথাড়ি কোপাতে থাকে সন্ত্রাসীরা। সাগরের চিৎকারে সোমসের খাঁনের স্ত্রী মোছাঃ সফুরা খাতুন, বড় ছেলে সবুজ খাঁন ও মেজো ছেলে শিহাব উদ্দিন, প্রতিবেশি রাব্বি ঠেকাতে আসলে তাদের উপরও এলোপাথাড়ি কুপিয়েছে সন্ত্রাসীরা। অবস্থার আরও অবনতি ঘটলে এলাকাবাসীরা ছুটে আসলে সন্ত্রাসীরা ঘটনা স্থল ত্যাগ করে। এলাকাবাসী আসামীদের কোবল থেকে আহতদের উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। সাগর খাঁনের অবস্থা আশংকা জনক হওয়ায় কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে স্থানান্তর করে কর্তব্যরত ডাক্তার। এব্যাপারে সোমসের খাঁ বাদী হয়ে কুষ্টিয়া মডেল থানায় ২৭/১২২ একটি মামলা দায়ের করেছেন। খাঁ পরিবারসহ এলাকাবাসী অবিলম্বে সন্ত্রাসী দের গ্রেপ্তার সহ দৃষ্টান্ত শাস্তির দাবী করেছেন।

এ বিষয়ে মামলার দায়িত্বপ্রাপ্ত মিলপাড়া ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই মতিন বলেন, আমি আমার সঙ্গীয় ফোর্সনিয়ে আসামী শহর আলী ও মুন্নাকে গ্রেফতার করেছি এবং আমার প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here